এশিয়া কাপ দুবাইয়ে না বাংলাদেশে?

এ বছর এশিয়া কাপ পাকিস্তানের জন্য ‘নিরপেক্ষ’ কোনো ভেন্যুতে আয়োজন করা হবে। তবে সেটি দুবাইয়ে না বাংলাদেশে, সে বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি—জানিয়েছেন পিসিবি সভাপতি তাহলে সৌরভ গাঙ্গুলীর কথাতেই সায় দিলেন পিসিবি সভাপতি?

ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলী কথাটা বলেছিলেন গত মাসের শেষ দিকে। এ বছর এশিয়া কাপ আয়োজনের স্বত্ব পাকিস্তানের হলেও তখনো ভেন্যু চূড়ান্ত হয়নি। এর মধ্যেই গাঙ্গুলী আগ বাড়িয়ে বলে দেন, এশিয়া কাপ বছরের শেষ দিকে অনুষ্ঠিত হবে দুবাইয়ে। এর প্রতিবাদে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) সভাপতি এহসান মানি তখন বলেছিলেন, এশিয়া কাপের ভেন্যু নিয়ে এখনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি। কিন্তু হুট করেই সুর পাল্টালেন মানি। ইসলামাবাদে সংবাদমাধ্যমকে পিসিবি সভাপতি বলেছেন, আয়োজনের স্বত্ব পাকিস্তানের কাছে থাকলেও নিরপেক্ষ ভেন্যুতেই আয়োজিত হবে এশিয়া কাপ।

তবে পাকিস্তানের সেই এশিয়া কাপ বাংলাদেশে হবে, নাকি সংযুক্ত আরব আমিরাতে, এ নিয়ে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি বলেই জানিয়েছেন মানি। দুই দেশের রাজনৈতিক অস্থিরতার প্রভাব তো সব সময়ই পড়ে ভারত-পাকিস্তানের ক্রিকেটে। প্রভাব পড়ছে এশিয়া কাপেও। এশিয়া কাপের ভেন্যু নিয়ে কথার লড়াই চলে আসছে ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে। ২০১৮ এশিয়া কাপ আয়োজনের স্বত্ব যেমন ভারতের হাতে থাকলেও সেই সিরিজটি আয়োজিত হয়েছিল সংযুক্ত আরব আমিরাতে। এবার উল্টোটা হওয়ার সম্ভাবনা।

বিসিসিআইয়ের দাবি, পাকিস্তানে এশিয়া কাপ আয়োজন করা হলে নিরাপত্তার কারণে ভারতের দল সেখানে যাবে না। এ কারণেই নিরপেক্ষ ভেন্যু হিসেবে তখন দুবাই ও বাংলাদেশের নাম উঠে এসেছিল। তখন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরীও বাংলাদেশে এশিয়া কাপ আয়োজনের সম্ভাবনার কথা জানিয়েছিলেন। তবে এরপর বিসিসিআই সভাপতি এশিয়া কাপের আয়োজক হিসেবে সরাসরি দুবাইয়ের কথা বলেন। দুবাইয়ে গত সপ্তাহে বৈঠকে বসার কথা ছিল এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলের (এসিসি)।

করোনাভাইরাস মহামারির জন্য এ বৈঠক পিছিয়ে চলতি মাসের শেষ নাগাদ নেওয়া হয়েছে। মানি জানিয়েছেন, এ বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে এশিয়া কাপ নির্ধারিত সেপ্টেম্বর মাসেই আয়োজন করা হবে কি না। ভেন্যু নিয়েও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। এ প্রসঙ্গে মানি বলেন, ‘দুবাই না বাংলাদেশে আয়োজন করা হবে, সে বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। মহাদেশীয় শ্রেষ্ঠত্বের এ টুর্নামেন্ট নিরপেক্ষ ভেন্যুতে আয়োজন করা নিয়ে মানি বলেন, ‘এশিয়া কাপের আয়োজক পাকিস্তানই। তবে এ টুর্নামেন্ট নিরপেক্ষ ভেন্যুতে হতে হবে।

আমরা পাকিস্তানে আয়োজনের চাপাচাপি করলে ভারত আসবে না। বিসিসিআই কী বলল, তা নিয়ে আমাদের কোনো মাথাব্যথা নেই।
পাকিস্তানের জাতীয় অ্যাসেম্বলিতে স্থায়ী কমিটির বৈঠকে এসব কথা বলেন পিসিবি সভাপতি। পাকিস্তান সুপার লিগ (পিএসএল) আয়োজন করা নিয়ে ভারতীয় ক্রুদের প্রশংসাও করেন তিনি। ভারতের ক্রুরা না থাকলে পিএসএল টিভিতে সরাসরি সম্প্রচার করা সম্ভব হতো না, এমন মন্তব্যও করেন মানি। পাকিস্তানে রাষ্ট্রায়ত্ত টেলিভিশন প্রতিষ্ঠানের আন্তর্জাতিক ম্যাচ কিংবা পিএসএল সম্প্রচারের কারিগরি দক্ষতা ও যন্ত্রপাতি নেই বলেও জানিয়েছেন পিসিবি সভাপতি।

About pullman pullman

Check Also

ভিলিয়ার্স জানালেন হঠাৎ কেন অবসর নিয়েছিলেন

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে এ বি ডি ভিলিয়ার্সের অবসরের ঘোষণাটা অবাক করেছিল বেশির ভাগ ক্রিকেটপ্রেমীকেই। দুই …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *