এক যুগ পর আফসানা মিমির ছবি

এক যুগ পর বিশেষ প্রদর্শনী হলো আফসানা মিমি অভিনীত ছবি ‘লিলিপুটরা বড় হবে’। ছবিটি প্রথম ২০০৮ সালে সিনেমা হলে মুক্তি পায়। মুক্তির এক যুগ পূর্তি উপলক্ষে ছবিটি প্রদর্শনী হবে বলে জানান নির্মাতা রাকিবুল হাসান। ৬ মার্চ শাহবাগের আজিজ সুপার মার্কেটের তৃতীয় তলায় বাংলাদেশ চলচ্চিত্র কেন্দ্রে ‘লিলিপুটরা বড় হবে’ দেখা যাবে। বিনা মূল্যে দর্শক ছবিটি উপভোগ করেছে। ১২ বছর পর দর্শকের সামনে চলচ্চিত্রটির প্রদর্শনী সম্পর্কে নির্মাতা বলেন, ‘২০০৮ সালে ছবিটি ৩৫ মিলিমিটারে শুটিং করা।

তখন সিনেমা হল ছাড়া প্রদর্শনীর ব্যবস্থা ছিল না। সেই সময়ে দর্শকের অনেক ভালো সাড়া পেয়েছি। চাইলেও অনেক জায়গায় প্রদর্শনী করতে পারিনি। এক যুগ পর এই নতুন প্রজন্মের তরুণ দর্শক কীভাবে ছবিটিকে নেয়, সেটা দেখার জন্য কৌতূহলী হয়ে এই বিশেষ প্রদর্শনীর ব্যবস্থা করা। ‘লিলিপুটরা বড় হবে’ গল্প লিখেছেন মঈনুল আহসান সাবের। চিত্রনাট্য করেছেন নির্মাতা রাকিবুল হাসান নিজেই। শ্রেণিবৈষম্যের এই ছবি গল্প গালিভার ট্রাভেলের তিনটি চরিত্রকে কেন্দ্র করে এগিয়ে যায়।

গল্পটি জনাথন সুইটের গালিভার ট্রাভেল থেকে অনুপ্রাণিত। গালিভার ট্রাভেলে দেখা যাবে, লিলিপুট নিম্নবিত্তের প্রতীক, ববডিন ও গালিভার উচ্চবিত্তের প্রতীক এবং মধ্যবিত্তের প্রতীক। মূল গল্পে নিম্নবিত্তের সমস্যায় মধ্যবিত্তরা সাহায্যে এগিয়ে আসে না। লেখক রূপক অর্থে উপন্যাসটি লিখেছিলেন। সেই গালিভার ট্রাভেল উপন্যাসটির গল্প খাপ খাওয়ানো হয়েছে বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে। নির্মাতা রাকিবুল হাসান বলেন, ‘আমাদের সমাজবাস্তবতা গালিভারের মতোই।

এখানে মধ্যবিত্তরা একটা সুবিধাবাদী অবস্থানের মধ্যে আছে। লিলিপুটদের প্রতি তাঁদের একটা সহানুভূতি আছে, কিন্তু উচ্চবিত্তদের তাঁরা ভয় পান। মধ্যবিত্ত সব সময় নিরপেক্ষ থাকার চেষ্টা করেন। লিলিপুটরা বড় হবে’ ছবিতে করিম স্যারের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন রাইসুল ইসলাম আসাদ। যার ছেলেকে একই গ্রামের আফতাব মোল্লা মেরে ফেলে। গ্রামের মধ্যবিত্তরা স্যারের উপকার করতে যায়। সবাই চায় আফতাব মোল্লার বিচার হোক। কিন্তু উচ্চবিত্তদের ভয়ে একসময় মধ্যবিত্তরা পিছিয়ে যায়।

গল্পের একটা পর্যায়ে নিম্নবিত্ত করিম স্যার বুঝতে পারেন, মধ্যবিত্ত শুধু মুখে মুখেই বলবেন, কিন্তু কোনো প্রতিবাদে এরা থাকে না। নির্মাতা জানান, ‘ছবিটির প্রথম প্রদর্শনী হয় অস্ট্রিয়ার ভিয়েনায়। ছবিটি বিভিন্ন উৎসবে প্রদর্শনীর সময় অনেকেই প্রশংসা করেন। ছবিতে অভিনয়ের জন্য মেরিল–প্রথম সেরা অভিনেতা হিসেবে সমালোচক পুরস্কার পান রাইসুল ইসলাম আসাদ। ‘লিলিপুটরা বড় হবে’ ছবিতে অভিনয় করেছেন খায়রুল আলম সবুজ, চিত্রলেখা গুহ, আব্দুল আজিজ প্রমুখ।

About pullman pullman

Check Also

‘আফসোস অনেকে সবকিছু জেনেও নিয়ম ভঙ্গ করছে’

ভয়াল এক সময় পার করছে সারা বিশ্ব। সারা বিশ্বের এখন সবচেয়ে বড় সংকট করোনাভাইরাস। কী …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *